প্রোফাইল ছবি চুরি বন্ধে বাংলাদেশে প্রোফাইল গার্ড চালু করছে ফেসবুক…।

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের প্রোফাইলের ছবি যাতে কেউ চুরি করতে না পারে, সে ধরনের একটি ফিচার বাংলাদেশে চালু করছে ফেসবুক। আজ বৃহস্পতিবার ফেসবুকের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। ১৪ মার্চ ফেসবুক নিউজরুমে বাংলায় এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

ফেসবুক লিখেছে, ‘গত বছর ভারতে আমরা ফেসবুকের কিছু নতুন টুল চালু করেছিলাম, যা ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ব্যবহৃত প্রোফাইল পিকচারের ওপর তাদের নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। নতুন এই টুল ব্যবহার করে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী তাঁর প্রোফাইল পিকচার অন্য কোনো ফেসবুক ব্যবহারকারী ডাউনলোড ও শেয়ার করতে পারবেন কি না, তা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। ফেসবুকের এই টুলগুলো আমরা এবার বাংলাদেশে চালু করতে যাচ্ছি।’

ফেসবুকের পোস্টে বলা হয়েছে, প্রোফাইল পিকচার ফেসবুকে কমিউনিটি তৈরিতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কারণ, এর মাধ্যমে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী খুব সহজেই তাঁর বন্ধুদের খুঁজে যোগাযোগ করতে পারেন। কিন্তু অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী ফেসবুকে তাঁদের প্রোফাইল পিকচার যোগ করতে নিরাপদ বোধ করেন না। একটি গবেষণার মাধ্যমে বিভিন্ন নিরাপত্তা সংস্থা এবং সাধারণ মানুষের কাছ থেকে জানা যায়, কিছু নারী তাঁদের চেহারাসংবলিত কোনো ছবি ইন্টারনেটে যুক্ত না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কারণ, তাঁরা সব সময় ইন্টারনেটে তাঁদের সংযুক্ত করা ছবির নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত থাকেন।

আরও বলা হয়, ‘ভারতে ফেসবুকের এই টুলগুলো খুব বড় পরিসরে ব্যবহৃত হচ্ছে। ভারতের মতো অন্য দেশগুলোতেও আমরা এই টুলগুলো সম্প্রসারণ করতে চাইছে, যেখানে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা তাঁদের প্রোফাইল পিকচারের ওপর আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ চান। সঙ্গে সঙ্গে আমরা আরও অনেক ফিচার যুক্ত করার চেষ্টা করছি, যার মাধ্যমে ফেসবুক ব্যবহারকারী তাঁর পছন্দানুযায়ী প্রোফাইল পিকচার ডিজাইন করতে পারবেন।’
গবেষণায় দেখা গেছে, প্রোফাইল পিকচারের অপব্যবহার রোধে নিজস্ব ডিজাইন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

নতুন এ ফিচারে ব্যবহারকারীদের যে নিয়ন্ত্রণগুলো পাবেন
ফেসবুক ব্যবহারকারীরা বিশেষ প্রোফাইল পিকচার গার্ড অপশন চালু করার নির্দেশনাবলি দেখতে পাবেন। আপনি এই গার্ড ছবিতে ব্যবহার করলে অন্য সব ব্যবহারকারী আপনার প্রোফাইল পিকচার ডাউনলোড বা শেয়ার করতে পারবেন না। আপনার ফেসবুক ফ্রেন্ডলিস্টের বাইরের কোনো ব্যক্তি আপনার প্রোফাইল পিকচারে নিজেদের বা অন্য কাউকে ট্যাগ করতে পারবেন না। এ নিরাপত্তাব্যবস্থা এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন থেকেও আপনার ফেসবুক প্রোফাইল পিকচারের স্ক্রিনশট নেওয়া যাবে না। নিরাপত্তার সংকেত হিসেবে আপনার প্রোফাইল পিকচারে একটি নীল বর্ডার ও শিল্ড দেখানো হবে।

জুতা পরে হাঁটলেই চার্জ হয়ে যাবে ফোন।।

প্রযুক্তি মানুষের দৈনন্দিন জীবনকে করেছে সহজ থেকেও সহজতর ও গতিশীল। তারপরও থেমে নেই নিত্য নতুন আবিষ্কারের সন্ধানে চলছে অব্যাহত প্রচেষ্টা। সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং বিজ্ঞানীরা তৈরি করেছেন এমন এক যন্ত্র, যা মানুযের চলাফেরার শক্তিকে বিদ্যুতে রুপান্তরিত করে।

বলতে পারেন, চার্জার-পাওয়ার ব্যাংকের দিন শেষ। এবার থেকে জুতা পরে হাঁটলেই চার্জ হয়ে যাবে ফোন। অনেক সময় এমন হয় যে, বাইরে বেরোনোর সময়েই ফোনে চার্জ থাকে না। সেই রকম পরিস্থিতির জন্যই এমন উদ্ভাবন।

জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৬ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক টম ক্রুপেনকিন এই বিষয়ে একটি নিবন্ধ প্রকাশ করেন। তাঁর মতে, মানুষের চলাফেরার সময় যে শক্তির উৎপাদিত হয়, তা থেকে দেহজাত তাপ উৎপন্ন হয়। সেই তাপকে কাজে লাগিয়ে বিদ্যুৎও উপাদন করা যায়। এই গবেষণায় তাঁর সহকারী ছিলেন জে অ্যাশলি টেলর।

নানা পরীক্ষা করার পর অবশেষে তিনি এক ধরনের জুতা আবিষ্কার করেন, যা পরে হাঁটলে বিদ্যৎ তৈরি হবে। সেই বিদ্যুৎকে কাজে লাগিয়ে মোবাইলে ল্যাপটপ ইত্যাদি চার্জ দেওয়া যাবে। শক্তি-উৎপাদক এই জুতা সামরিক বাহিনীতে বিশেষ উপযোগী। কারণ, জুতার তলায় এই যন্ত্রকে লাগিয়ে সহজেই সৈন্যরা ফ্ল্যাশলাইট জ্বালিয়ে বহন করতে পারবেন, তাঁদের রেডিও, নাইট ভিশন গগ্‌লস ইত্যাদিকে রিচার্জ করতে পারবেন।

এক সাক্ষাৎকারে টম জানিয়েছেন যে, এই যান্ত্রিক জুতা পরে চলাফেরা করলে প্রতিটি জুতোয় প্রায় ১০ ওয়াট বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয়। অর্থাৎ দু’টি জুতা একত্রে প্রায় ২০ ওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করে, যা মোবাইল চার্জ দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

এই বিষয়ে টম আরও বলেছেন যে, এই বিশেষ জুতার সোলে একটি শক্তি উৎপাদক যন্ত্র এবং ব্যাটারি-সহ অন্যান্য বৈদ্যুতিক উপাদান রয়েছে। এছাড়াও আছে দু’টি প্লেটও, যারা এক ধরনের তরলের মাধ্যমে পরস্পরের থেকে পৃথক থাকে। নিচের প্লেটে অসংখ্য ছিদ্র থাকে যা মানুষের হাঁটার সময় এক ধরনের চাপের সৃষ্টি করে। যার জন্য মানুষের শরীর থেকে উৎপন্ন তাপশক্তি বিদ্যুতে রূপান্তরিত হয়।

সম্প্রতি ‘ইনস্টেপ ন্যানোপাওয়ার’ নামে এক কোম্পানিও চালু করেছেন টম এবং টেলর, যার মাধ্যমে এই প্রযুক্তিকে সারা বিশ্বের কাছে পৌঁছে দিতে চান তাঁরা।

মানুষের কামড়ে বিষধর সাপের মৃত্যু…!! অবাক করা কাণ্ড ।।

সাপের কামড়ে মানুষের মৃত্যুর ঘটনা নতুন নয়। তবে মানুষের কামড়ে সাপের মৃত্যুর ঘটনা কখনো শুনেছেন কি? এমনই অবাক করার মতো ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্য প্রদেশের মরিনা জেলার সাবালপুর টেহসিলের পাছের গ্রামে।

ওই গ্রামের জালিম সিং কুশওহা নামের এক ব্যক্তি গত শনিবার নিজের খামারে কালো রঙের একটি সাপ দেখতে পান। তখন জালিম কিছুটা মাতাল অবস্থায় ছিলেন। তিনি সাপ ধরে কামড়ে দেন। এর কিছুক্ষণ পরই সাপটি মারা যায় আর জালিম জ্ঞান হারান।

পরে গ্রামবাসী অচেতন অবস্থায় কুশওহাকে হাসপাতালে নিয়ে যান।

হাসপাতালের চিকিৎসক রগভিন্দ্র যাদব বলেন, সাপটিকে কামড়ানোর পর ভয়ে ও আতঙ্কে অজ্ঞান হয়ে যান জালিম। আর সাপটি খুব বিষধর ছিল। যদি বিষ তাঁর রক্তে প্রবেশ করত, তা কুশওহার জন্য মারাত্মক হতে পারত।

তবে কুশওহা সুস্থ আছেন। প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়ার পর তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এর আগে ভারতের উত্তর প্রদেশের এক ব্যক্তি প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে এক বিষধর সাপের মাথায় কামড় দেন। এতে সাপটি মারা যায়।

গুগল থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে ‘ভিউ ইমেজ’ বাটনটি…।।

গতকাল বৃহস্পতিবার টুইটারে একটি পোস্টের মাধ্যমে নতুন এই পরিবর্তনটির কথা জানিয়েছে এই সার্চ জায়ান্ট। ফলে এখন কপিরাইটেড ছবিগুলো ডাউনলোড করতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে ব্যবহারকারীদের।

এতদিন ‘ভিউ ইমেজ’ বাটনে ক্লিক করে খুব সহজেই পাওয়া যেত ছবিটির পূর্ণাঙ্গ রূপ। এর ফলে কপিরাইট লঙ্ঘন নিয়ে বেশ চিন্তাতেই পড়ে গিয়েছিলেন ফটোগ্রাফার, প্রকাশকরা।

এখন ছবিটি বড় আকারে দেখতে চাইলে ‘ভিসিট’ বাটনে ক্লিক করে সরাসরি ওয়েবসাইটে চলে যেতে হবে ব্যবহারকারীদের।

নতুন এই পরিবর্তনটির কথা জানিয়ে গুগলের টুইটার অ্যাকাউন্টে লেখা হয়েছে, ‘ব্যবহারকারী ও ওয়েবসাইটের মধ্যে সঠিক বন্ধন ঘটানোর জন্য আমরা গুগল ইমেজ সার্চে কিছু পরিবর্তন এনেছি। এখান থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে ভিউ ইমেজ বাটনটি। তবে ভিসিট বাটনটি অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে যেন ব্যবহারকারীরা ওয়েবসাইটে গিয়ে ছবিটি পুরো প্রাসঙ্গিকতাসহ বুঝতে পারে।’

মুকেশ আম্বানির অর্থে ভারত সরকার ২০ দিন চলবে…!!

প্রশ্ন যদি হয়, আপনার অর্থ দিয়ে নিজের দেশকে কতোদিন চালাতে পারবেন? উত্তর দিতে পারবেন কি? ভারতের শীর্ষস্থানীয় ধনী মুকেশ আম্বানির কাছে কিন্তু এই প্রশ্নের উত্তর আছে। তিনি নিজের যে অর্থ-সম্পত্তি রয়েছে, তা দিয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় সর্ববৃহৎ জনগোষ্ঠীর দেশ ভারতের সরকারকে চালাতে পারবেন ২০ দিন।

সম্প্রতি বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে ব্লুমবার্গ। তালিকায় শীর্ষ ধনীদের ব্যক্তিগত অর্থে কতোদিন তাদের স্বদেশের সরকারি ব্যয় চালানো যাবে, তা তুলে ধরা হয়।

সম্পত্তি বিবেচনায় এ তালিকায় স্থান পেয়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ৪৯ জন ধনকুবের। তালিকা প্রকাশের জন্য ২০১৭ সাল শেষে ধনী ব্যক্তিদের মোট সম্পত্তি হিসাব করা হয়। ভারতের শীর্ষ ধনী মুকেশ আম্বানির মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৪০ দশমিক ৩ বিলিয়ন (৪ হাজার ৩০ কোটি) মার্কিন ডলার। এ অর্থ দিয়ে ভারত সরকারকে চালানো সম্ভব ২০ দিন পর্যন্ত।

ব্লুমবার্গের এ তালিকায় ধনীদের দেশ হিসেবে ভারতের অবস্থান চীন, নেদারল্যান্ডস, ফ্রান্স, রাশিয়া, ব্রাজিল, অস্ট্রেলিয়াসহ আরও অনেক দেশের চেয়ে উপরে।

দেশের বাজারে এসেছে শাওমির নতুন ফোন ”Xiaomi Redmi 5 Plus”

৫ দশমিক ৯৯ ইঞ্চি ডিসপ্লের ফোনটিতে ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি রম রয়েছে। ধাতব কাঠামোর ফোনটির পেছনে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। সামনে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা, সেলফি ফ্ল্যাশ লাইট।

ফুল-স্ক্রিন ডিসপ্লের স্মার্টফোনটি দেশে বিপণন করছে সোলার ইলেকট্রো বাংলাদেশ লিমিটেড। এর দাম ১৭ হাজার ৯৯০ টাকা। অনলাইনে কিকশা ডটকম থেকে কিস্তিতে এটি কেনার সুযোগ রয়েছে।

সোলার ইলেকট্রোর প্রধান নির্বাহী দেওয়ান কানন বলেন, ভারতে ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম হলো স্মার্টফোন ক্রয়–বিক্রয়ের প্রধান মাধ্যম। দেশেও শাওমির নতুন কোনো মডেল এলে প্রথমে ই-কমার্স প্লাটফর্মগুলোয় পাওয়া যায়। ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মের ওপর মানুষের যাতে আগ্রহ বাড়ে, সে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

প্রশ্নফাঁস এড়াতে কখন কখন ইন্টারনেট বন্ধ থাকবে ?? জেনে নিন বিস্তারিত…।।

জানা গেছে, প্রশ্নফাঁস রোধে আজকে রাতে আধা ঘণ্টার জন্য ইন্টারনেট বন্ধ রেখে ট্রায়াল দেয়া হয়েছে। বিটিআরসি তথ্য জানানো হয়েছে।

এছাড়া আরো জানা গেছে, এসএসসি পরীক্ষা যেদিন যেদিন চলবে সেদিন সকাল ৮টা থেকে সাড়ে দশটা পর্যন্ত সারাদেশে ইন্টারনেট বন্ধ থাকবে।

সবাই যার যার মত ইন্টারনেট চালাচ্ছে। রাত দশটার পরেই বন্ধ হয়ে যায় নেট। তবে শুধুমাত্র ঢাকায় নয়। সারাদেশেই এই নেট বন্ধ ছিল।

জেনে নিন, কখন ও কয়টায় পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট

১১-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০
১২-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০
১৩-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০
১৫-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০
১৭-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০
১৮-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে দশটা আর দুপুর ১২টা থেকে ২.৩০
১৯-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০
২০-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০
২২-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০
২৪-০২-১৮ সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০

আজ রাতে দেখা যাবে ‘সুপার মুন’…।

উত্তর আমেরিকা, এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, রাশিয়া এবং অস্ট্রেলিয়া অঞ্চল থেকে দেখা যাবে এ অত্যাশ্চর্য দৃশ্য। চন্দ্রগ্রহণ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টা ৫১ মিনিটে, চলবে রাত ১০টা ৮ মিনিট পর্যন্ত।

তবে বাংলাদেশ থেকে এ চন্দ্রগ্রহণ দেখতে হলে আকাশে চাঁদ ওঠা পর্যন্ত, অর্থাৎ সন্ধ্যারাত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

অবলোকন করা যাবে রক্তিম চাঁদ। শেষবার এমনটা ঘটেছিল ১৫২ বছর আগে। জ্যোতির্বিদরা এ বিরল ঘটনার নাম দিয়েছেন ‘সুপার ব্লু ব্লাড মুন এক্লিপস’।

প্রসঙ্গত, একই মাসে দু’বার পূর্ণিমার চাঁদ দেখা গেলে দ্বিতীয় পূর্ণিমার চাঁদকে বলা হয় ব্লু-মুন। নামে ‘নীল চাঁদ’ হলেও নীল রঙের সঙ্গে এ চাঁদের কোনো সম্পর্ক নেই। তাছাড়া এসময় চাঁদকে স্বাভাবিকের তুলনায় ১৪ শতাংশ বেশি উজ্জ্বল দেখাবে বলে এ চাঁদকে বলা হচ্ছে ‘সুপার মুন’। চন্দ্রগ্রহণের সময় একই সঙ্গে দেখা যাবে ‘ব্লাড মুন’ও। পৃথিবীর ছায়ায় অবস্থানের কারণে চাঁদ রক্তিম বা রক্তরঙা হয়ে ওঠে।

স্মার্টফোন পানিতে পড়ে গেলে কি করবেন ??

আমাদের জীবনে মোবাইল এতটাই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে যে সর্বক্ষণের সঙ্গী মোবাইল ফোনটি।কিন্তু তাড়াহুড়োতে বা কোনো কারণে এই ফোনটি পানিতে পড়ে গেলেই ঘটে বিপত্তি। এখন অনেক কোম্পানি ওয়াটার প্রুফ ফোন বানিয়েছে।

কিন্তু তাদের মূল্য আকাশ ছোঁয়া। যা সাধারণ মানুষের হাতের নাগালের বাইরে। কিন্তু আপনার ফোন যদি ওয়াটার প্রুফ না হয় তাহলে আপনাদের জন্য রয়েছে কয়েকটি টিপস।

এর মাধ্যমে সামান্য কয়েকটি উপায়ে পানিতে পড়ে যাওয়া ফোন আপনি ঠিক করতে পারবেন।তাও আবার বাড়িতে বসে বিনামূল্যে।

১. ফোন পানিতে পড়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা তুলে ফেলুন। যত বেশি পানি থাকবে ফোনটি তত তাড়াতাড়ি ফোনের বিভিন্ন পার্টস খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। পানি বেশিক্ষণ থাকলে শর্ট সার্কিট হয়ে যেতে পার। এতে ফোনে থাকা সমস্ত ডেটা মুছে যায়।

২. ফোন স্টার্ট করার আগে ভালো করে মুছে নিন। ফোনের ভিতরের সব কিছু, অর্থাৎ ব্যাটারি, সিম কার্ড, মেমরি কার্ড খুলে ফেলুন শিগগিরই। ফোনের খোলা অংশগুলি একটি শুকনো কাপড়ে মুছে কাপড়টি মুড়ে রেখে দিন। দেখবেন ফোনের কোনও ক্ষতি হবে না। ফোনের ভিতরের অংশ পাতলা কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে ফেলুন।

৩. সিম কার্ডও বাইরে বার করে রাখুন। এরপর ফোনের ভিতর ভালো করে মুছে ফেলুন। তারপর সিম কার্ড ইনসার্ট করুন।

৪. ফোনে স্ক্রিন গার্ড লাগানো থাকলে সেটাও খুলে রাখুন।

৫. ভুল করেও ফোনে হেয়ার ড্রাইয়ারের প্রয়োগ করবেন না। হেয়ার ড্রাইয়ারের গরম হাওয়ায় ভিতরের পার্টসগুলি গলে যেতে পারে।

৬. এরপর কিছুক্ষণ ফোনটিকে রোদে রাখুন। যদি কোথাও অল্প পানি থেকে যায় তাহলে রোদে রাখলে তা শুকিয়ে যাবে।

৭. ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত ফোনে ব্যাটারি লাগাবেন না। চালের মধ্যে বা সিলিকা জেল-এ ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা রাখতে হবে।

এরপরও যদি আপনার ফোন চালু না হয় তাহলে ফোনটিকে সার্ভিস সেন্টারে নিয়ে যান।

লাভার নতুন ফোন দেবে ১৭ দিনের ব্যাটারি ব্যাকআপ।

ভারতের হ্যান্ডসেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান লাভা কম দামের একটি স্মার্টফোন বাজারে ছেড়েছে।

মডেল লাভা প্রাইম এক্স। ভারতের বাজারে ফোনটি বিক্রি হচ্ছে ১৪৯৯ রুপিতে। ফোনটি ভারতেই তৈরি।

এর আগে লাভা এত কম দামে ফোন বাজারে ছাড়েনি।

লাভা দাবি করছে তাদের নতুন এই ফোন দেবে ১৭ দিনের ব্যাটারি ব্যাকআপ। এছাড়াও গ্রাহকদের দুই বছরের রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টি দেবে কোম্পানি।

মনে করা হচ্ছে এই ফোনের মাধ্যমে খুব শিগগিরই সারা ভারতে সংবাদের শিরোনামে চলে আসবে এই কোম্পানিটি। এছাড়াও আগামি অক্টোবরের মধ্যে প্রথম ‘ডিজাইনড ইন ইন্ডিয়া’ স্মার্টফোন লঞ্চ করার পরিকল্পনা করছে লাভা।

২০২১ সাল পর্যন্ত সব ফোন ভারতেই তৈরি করবে লাভা। লাভা ফোনের জন্ম ২০১৬ সালে।

গুগুলের সাথে গাঁটছড়া বেঁধে অ্যানড্রয়েড গো স্মার্টফোন লঞ্চ করবে লাভা। এই এন্ট্রি লেভেল স্মার্টফোনগুলিতে ১ জিবি র‌্যাম ও প্রিলোডেড রম থাকবে।

এছাড়াও এই ফোনগুলিতে গুগুলের গো এডিশান অ্যাপগুলি প্রিলোডেড থাকবে।